ঈশ্বরদী লোকোমোটিভ রানিং সেড ইঞ্জিন থেকে ৫১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধিঃ ঈশ্বরদী ডিজেল লোকো মোটিভ রানিং সেড সংরক্ষিত এলাকায় মধুমতি ট্রেনের ৬৫/০১ পাওয়ার ইঞ্জিন থেকে ৫১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী।

বাংলাদেশ রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী জি শাখার চৌকস এস আই মোঃ সিদ্দিকুর রহমান তার সঙ্গীয় সদস্য ও সংশ্লিষ্ট লোকো দপ্তরের ইনচার্জ কে সঙ্গে নিয়ে এই এই উদ্ধার কাজ চালায়।

ঈশ্বরদী নিরাপত্তা অফিস ও সংশ্লিষ্ট দপ্তর সুত্রে জানাগেছে, মঙ্গলবার ৯ই মার্চ ঈশ্বরদী সংরক্ষিত ডিজেল লোকো মোটিভ রানিং সেড মধুমতি ট্রেনের ৬৫/০১ পাওয়ার ইঞ্জিন থেকে বিশেষ কায়দায় রাখা ৫১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে। এসময় উক্ত ফেনসিডিল এর কোন মালিক পাওয়া যায়নি।

এদিকে এই ফেনসিডিল উদ্ধারের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের (ইনচার্জ) উর্দ্ধতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ শারেক জামাল এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন উদোর পিন্ডি বুদোর ঘারে চাপতে পারে। অপর এক প্রশ্নের উত্তরে পুরো লোকো মোটিভ সিসি ক্যামেড়ায় সংরক্ষিত রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে সিসিটিভি ক্যামেরা দেখা হবে।

লোকো মোটিভ রানিং সেড সূত্র জানা যায়, মধুমতি ট্রেনের ৬৫/০১ নং পাওয়ার ইঞ্জিন চালকবৃন্দ ডিউটি শেষে পাওয়ার ইঞ্জিন বুঝিয়ে দিয়ে আসে। তারপর কি হয়েছে সেটা চালকবৃন্দ জানেন না। এবিষয়ে কি হবে তা সংশ্লিষ্ট দপ্তর জানেন বলে তারা জানান।

সংশ্লিষ্ট বিষয়ের অনেক বোদ্ধারা জানিয়েছেন, পাওয়ার ইঞ্জিনে এই অবৈধ ফেনসিডিল পাওয়ার বিষয়টির দায় এর চালক ও সহকারী চালক কোনমতে এড়াতে পারেন না।

এ বিষয়ে রেলওয়ে সদর দপ্তর পাকশী বিভাগীয় ডিভিশনাল ম্যানেজারের সাথে কথা বললে তিনি বলেন ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৩ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এসময়ের মধ্যে ট্রেনের চালকবৃন্দ কর্মস্থলে যোগদান করতে পারবেনা।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী জিআরপি থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে থানার অফিসার ইনচার্জ জানান।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন