এনসিবি বলিউড অভিনেতা এজাজ খান আটক করেছে; “যিনি বলেছিলেন তিনি কোরানকে সংবিধানের ঊর্ধ্বে রাখবেন”

স্বতঃকণ্ঠ বিনোদন প্রতিবেদনঃ এবিপি নিউজ জানিয়েছে, নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) অভিনেতা এজাজ খানকে তাদের হেফাজতে নিয়েছে। জানা গেছে, এনসিবি এই অভিনেতার জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েছে। রাজস্থান থেকে মুম্বাই ফিরে আসার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এজাজ খানের বিরুদ্ধে বাতা গ্যাং-এর সদস্য হওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। ফারুক বাতার ছেলে শাদাব বাতাকে এর আগে এনসিবি গ্রেফতার করে এবং সেখান থেকে ২ কোটি টাকার মাদক উদ্ধার করা হয়। শাদাব বাতার বিরুদ্ধে বলিউড সেলিব্রিটিদের মাদক সরবরাহের অভিযোগ আনা হয়েছিল।

এর আগেও ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে একটি ফেসবুক লাইভ ভিডিওতে সাম্প্রদায়িক মন্তব্যের জন্য মুম্বাই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

ফেসবুক লাইভ ভিডিওতে এজাজ খান মূলত বলেছিলেন, “যদি কোন পিঁপড়া মারা যায়, তাহলে একজন মুসলমান দায়ী, যদি হাতি মারা যায়, তাহলে একজন মুসলমান দায়ী। যদি দিল্লিতে ভূমিকম্প হয়, তাহলে একজন মুসলমান দায়ী, অর্থাৎ একজন মুসলমান যে কোন ঘটনার জন্য দায়ী। কিন্তু আপনি কি কখনো ভেবেছেন এই ষড়যন্ত্রের জন্য কে দায়ী?

এর আগে তিনি “কোরানকে ভারতীয় সংবিধানের ঊর্ধ্বে রাখবেন” এমন মন্তব্যের জন্য বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। বিতর্কিত অভিনেতা কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেলের কাছ থেকে সমর্থন পেয়েছেন।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর এনসিবি বলিউডের মাদক পাচারের তদন্ত করছে। বিভিন্ন অভিনেতা এবং অভিনেত্রীকে এ ব্যাপারে তলব এবং জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

সূত্রঃ এবিপি

আরও পড়ুনঃ টুইটারে কঙ্গনার বারাবারি

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন