কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ার অপরাধে ঘর ছাড়া গৃহবধূ রোকসানা

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ায় গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে রোকসানা খাতুন নামে এক গৃহবধূকে মাত্র চার দিনের নবজাতকসহ তাড়িয়ে দেয় শ্বশুর বাড়ির লোকজনেরা।

স্বামী তাড়িয়ে দেওয়ায় বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিতে হয় রোকসানাকে।

(১২ মার্চ) শুক্রবার স্বামীর বাড়ির উঠান থেকে নবজাতক ও গৃহবধূকে উদ্ধার করে পুলিশ।

নির্যাতিতা বাদি হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে যৌতুক মামলা করেন।

মামলাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন।

স্বামী রাজা মিয়া ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে কন্যা সন্তানের বাবা হবে জানতে পেরে স্ত্রীর ওপর চলে নির্যাতন।

নানা ছুতা ধরে মারপিট, কখনও যৌতুক চেয়ে নির্যাতন চলে আসছিল মেয়েটির উপর।

গত ৮ মার্চ রংপুরের একটি বেসরকারি অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জন্ম নেয় তার কণ্যা সন্তান, সন্তান কে নিয়ে বাড়িতে আসলাে ঢুকতেই দেয়া হয়নি তাকে।

বাড়ির মূল ফটকে ঝুলিয়ে দেয়াা হয় তালা। নবজাতকসহ সারাদিন বাড়ির উঠানে বসেছিলেন মা। উপায়ান্ত খুঁজে না পেয়ে সন্ধ্যার দিকে ৯৯৯-এ কল দেন রোকসানা।

ততক্ষণে কোলের নবজাতকটি অনেকটাই অসুস্থ হয়ে পড়েন।

খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে রোকসানা ও তার নবজাতকে উদ্ধার করে।

পরে তার শ্বশুর বাড়ির মূল গেটে তালা ও বাড়িতে কাউকে না পেয়ে তাকে সুন্দরগঞ্জের বাবার বাড়িতে পাঠায় পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ যশোরের শার্শায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন