কপ্টারের ফোনে জানা গেল মঙ্গলে তাদের অবস্থান সুন্দর

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মঙ্গল থেকে  নাসার হেলিকপ্টারের ফোন। নাসার বক্তব‍্য, এই হেলিকপ্টারটি তাদের মঙ্গল রোভার পার্সিভারেন্সের ‘সাইডকিক’ হিসাবে দ্বায়িত্ব পালন করছে ।

কপ্টারটি ফোন করে জানিয়েছে, তার অবস্থান সুন্দর।

রোভারটির মাধ্যমে নাসার মার্স রিকনিসেন্স অরবিটারকে ব্যবহার করে কপ্টারটি পৃথিবীতে ফোন করে বলে জানিয়েছে নাসা

আগামী ৩ থেকে ৬০দিন এটি রোভারটির সঙ্গে  থাকবে বলে জানিয়েছে নাসা।

নাসার সায়েন্স মিশন ডিরেক্টরেটের অ্যাসোসিয়েট অ্যাডমিনেস্ট্রেটর থমাস জুরবুচান তার অনুভুতি সম্পর্কে বলেন, তার কাছে এই মূহুর্তটি রাইট ব্রাদার্সের প্রথম উড্ডয়নের মতোই মনে হচ্ছে।

পার্সিভারেন্সের টুইটার একাউন্ট থেকে বলা হয়েছে, ‘মঙ্গলের যে হেলিকপ্টারটিকে আমি বহন করছি, সেটি ইনজিনুইটি ধারণামতোই কাজ করছে।

এখন একে চার্জ করছি। এরপর একে  ছেড়ে দিলে সে নিজের সোলার প্যানেল দিয়েই কাজ চালাতে পারবে। যদি সে শীতল মঙ্গল রাতগুলোতে টিকে যায়, আমাদের টিম একে উড়ানোর চেষ্টা করবে।’

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি রোভারটি নিরাপদ অবতরণ করে মঙ্গলে।

পার্সিভারেন্স ইতোমধ্যেই মঙ্গল থেকে ছবি পাঠিয়েছে। এরপরই প্রথমবারের মতো হেলিকপ্টারটির সঙ্গে যোগাযোগে সক্ষম হয়।

বর্তমানে রোভারটির পেটে ঝুলে আছে ইনজিনুয়েটি। এটির ওজন ৪ পাউন্ড।

আরও পড়ুনঃ স্মার্টফোন জগতে নতুন চমক: ‘স্যামসাং এবং অ্যাপল’ হুয়াওয়ের কাছে পরাজিত

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন