নিখোঁজের পাঁচদিন পর নয়ন ফটোস্ট্যাটের মালিকের মরেদহ উদ্ধার

পাবনা প্রতিনিধিঃ নিখোঁজের পাঁচদিন পর পাবনার আটঘরিয়া থেকে শাজাহান আলী (৪০) নামের এক যুবদল নেতার গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (০৫ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার দেবোত্তর ইউনিয়নের গঙ্গারামপুর গ্রামের টয়লেটের হাউজ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত শাজাহান পাবনা শহরের শালগাড়ীয়া এলাকার তোফাজ্জল হোসেন ছেলে এবং নয়ন ফটোস্ট্যাটের মালিক।
জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস আহমেদ হিমেল রানা জানান, নিহত শাজাহান জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন।

কেউ তাকে পরিকিল্পতভাবে হত্যা করেছে। আমরা ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।
নিহতের বড় ভাই ফরিদুল ইসলাম জানান, গত ৩১ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে নিজের ফটোস্ট্যাট দোকান থেকে কাউকে কিছু না বলে বের হয়ে যান যুবদল নেতা শাজাহান আলী।

তারপর থেকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে তার কোনো খোঁজ পায়নি পরিবার। পরদিন ০১ এপ্রিল এ ঘটনায় সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়।

এদিকে, সোমবার (০৫ এপ্রিল) বিকেলে আটঘরিয়ার গঙ্গারামপুর গ্রামের আবুল কাশেমের বাড়ির পেছনে টয়লেটের হাউজ থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা একটি মৃতদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানায়।

আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গলিত মরদেহ  উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের স্বজনেরা গিয়ে লাশ সনাক্ত করেছে। তবে কে বা কারা তাকে হত্যার পর এখানে ফেলে রেখে গেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারলে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আরও পরুনঃ পাবনার সাঁথিয়ায় সরকারি ভর্তুকিতে কৃষিযন্ত্র কম্বাইন হারর্ভেষ্টার বিতরণ

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন