নেতানিয়াহুকে উৎখাত করতে জোটোবদ্ধ হয়েছে ইজরায়েলের বিরোধী দলগুলো

স্বতঃকণ্ঠ আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইজরায়েলের বিরোধীদল গুলি ক্ষমতা ভাগাভাগির বিষয়ে ঐকমতে পৌঁছেছেন এবং নেতানিয়াহুকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করতে জোটবদ্ধ হয়েছেন।

ইজরায়েলের একযুগ ব্যপি ক্ষমতায় থাকা লিকুড দলের নেতা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে অপসারন করে ডানপন্থি ইয়ামিনা দলের নেতা নাফতালি বেনেট প্রধানমন্ত্রী হিসাবে প্রতিস্থাপন করবেন। চুক্তি অনুযায়ী এরপরে মধ্যপন্থী ইয়েশ আদিত দলের নেতা ইয়ার ল্যাপিড এর জন্য ক্ষমতায় আসার পথ করে দেবেন বেনেট।

রবিবার ৩০ মে প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য ইজরায়েলের বিরোধী দলগুলো অতি-ডানপন্থী দলের নেতা নাফতালি বেনেটকে সমর্থন করেছেন, ফলে বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর এক যুগের রাজনৈতিক জীবনের সমাপ্তি হতে যাচ্ছে। ইজরায়েলের সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদী নেতা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বর্তমানে দুর্নীতির অভিযোগে বিচারাধীন রয়েছেন।

বেনেট এক টেলিভিশন ভাষণে ঘোষণা করেছেন, বিরোধী প্রধান ইয়ার ল্যাপিড দক্ষিণপন্থী, মধ্যপন্থী এবং বামপন্থী দলগুলিকে জোটবদ্ধ করতে এবং ১৯৯৯ সালের পর প্রথম নেতানিয়াহুকে নির্বাচনে পরাজিত করতে সক্ষম হয়েছেন।

মধ্যপন্থী ইয়েশ আতিদ দলের প্রধান ল্যাপিড, যিনি ২৩ মার্চের একটি অমীমাংসিত জাতীয় ভোটাভুটিতে নেতানিয়াহুর দক্ষিণপন্থী লিকুদ দলের সাথে প্রতিযোগীতা করে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন। ইজরায়েলের রাষ্ট্রপতি ল্যাপিডকে নতুন সরকার ঘোষণা করার জন্য বুধবার পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন।

ল্যাপিডের সাফল্যের সম্ভাবনা মূলত নাফতালি বেনেটের উপর নির্ভর করছে, যিনি একজন প্রাক্তন প্রতিরক্ষা প্রধান এবং ১২০ সদস্যের পার্লামেন্টে ইয়ামিনা দলের ছয়টি আসন বেনেটকে কিংমেকারের মর্যাদা দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

সম্ভাব্য ক্ষমতা ভাগাভাগি চুক্তির অধীনে, বেনেট লিকুড দলের ৭১ বছর বয়সী প্রধান নেতানিয়াহুকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে প্রতিস্থাপন করবেন এবং পরে একটি আবর্তন চুক্তিতে মধ্যপন্থী নেতা ল্যাপিড এর জন্য ক্ষমতায় আসার পথ করে দেবেন।

৪৯ বছর বয়সী বেনেট তার ভাষণে ল্যাপিডের সাথে অংশীদারিত্বে তার সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, “এটি পঞ্চম নির্বাচন এবং ঐক্যের সরকার।”

ইজরায়েল এপ্রিল ২০১৯ থেকে এপর্যন্ত চারটি অমীমাংসিত নির্বাচন করেছে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, নেতানিয়াহু বিরোধী জোটটি ভঙ্গুর হবে এবং আরব সংসদ সদস্যদের বাইরের সমর্থন প্রয়োজন হবে। যারা বেনেটের এজেন্ডার বেশিরভাগেরই বিরোধিতা করে। তারমধ্যে ইজরায়েল অধিকৃত পশ্চিম তীরে আরও বসতি নির্মাণ এবং এর আংশিক সংযুক্তির বিষয়গুলো প্রধান।

সূত্রঃ রয়টার্স

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন