পাবনাতে প্রতিবন্ধী নারীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় আটক ১

ভাঙ্গুড়া(পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার ভাঙ্গুড়ায় এক প্রতিবন্ধী (২৩) কে শ্লীলতা হানির অভিযোগে গোলজার হোসেন (৫২) কে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামি হলো, পৌরসদরের চৌবাড়িয়া হারোপাড়া(পশ্চিমপাড়ার) মৃত কছের প্রাং এর ছেলে গোলজার হোসেন (৫২)ও তিন সন্তানের জনক। গত রবিবার চৌবাড়িয়ার

বৃহস্পতিবার ১২আগস্ট বিকালের দিকে বাদীর মা থানায় এই মামলা দায়ের করেন।

ওই প্রতিবন্ধী ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের চৌবাড়িয়া পূর্ব হারোপাড়া মহল্লার দরিদ্র কৃষক আমজাদ হোসেনের মেয়ে ও উপজেলা সমাজ সেবা অফিসের ভাতাভুক্ত কার্ডধারী একজন প্রতিবন্ধী।

এব্যপারে ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মুঃ ফয়সাল বিন আহসান বলেন, প্রতিবন্ধী মেয়ের মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১০ ধারায় মামলা দায়ের করেছেন। শুক্রবার আসামীকে আটক করে কোর্টে চালান দেওয়া হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামি গোলজার হোসেন শিকারক্তিমুলক জিবনবন্দিতে বলেন, সে দিন যে সময় ওই প্রতিবন্ধী মেয়ের বাড়িতে  তিনি  গিয়েছিলো সে সময় ওই বাড়িতে প্রতিবন্ধী মেয়েটি ছাড়া কেহই ছিলেন না।

থানায় মামলা সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব হারোপাড়া গ্রামে ওই প্রতিবন্ধী বাড়ির পাশে যান।  বাড়িতে ফেরার পথে দুপুরের ওই প্রতিবন্ধীর বাড়িতে প্রবেশ  করেন। সময় ওই বাড়িতে প্রতিবন্ধী মেয়ে একা ছিলো। এই সুযোগে গ্রেফতারকৃত গোলজার হোসেন তার হাত ধরে শরীরের বিভিন্ন  ভাবে হাত দিয়ে শ্লীলতা হানি করেন ।

এক পর্যায়ে শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়ে চিৎকার দিলে প্রতিবেশী আয়শা খাতুন এগিয়ে এলে গোলজার হোসেন দ্রুত পালিয়ে যায়। বিষয়টি ওই প্রতিবন্ধী তার প্রতিবেশী আয়শা খাতুন ও পরে তার(প্রতিবন্ধীর)পিতা মাতা বাড়িতে আসলে ওই ঘটনা বিস্তারিত বলেন। ভিক্টিমকে নয়ে তার পিতা মাতা নিয়ে বৃহস্পতিবার ১২ আগস্ট সন্ধ্যার দিকে থানায় হাজির হয়ে মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুনঃ  পাবনাতে ধর্ষন মামলায় পিতা-পুত্র আটক

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন