পাবনার আতাইকুলার পুষ্পপাড়া হাট অবৈধ ইজারা বাতিল চেয়ে স্থানীয় জনগণ জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন পেশ

পাবনা প্রতিনিধিঃ পাবনার আতাইকুলা ইউনিয়নের পুষ্পপাড়া হাট ইজারা অবৈধ দাবী জানিয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন পেশ করেছে ঐ এলাকার জনগণ। গতকাল বুধবার ৯ জুন এলাকার বাসীর পক্ষে মো. হোসেন আলী খান, মো. নজরুল ইসলাম ও মাহাতাব উদ্দীনের সাক্ষরিত একটি আবেদন পাবনা জেলা প্রশাসক কবির মাহমুদ বরাবর পেশ করেছেন বলে জানা গেছে।

লিখিত আবেদনে জানা যায় এ যাবৎ কাল পুষ্পপাড়া হাট প্রকাশ্যে নিলামের মাধ্যমে ইজারা দেওয়া এবং সপ্তাহে ২ লক্ষ ৪৭ হাজার টাকা ইজারা দেওয়া হতো। আবেদনে আরো উল্লখ আছে উপজেলা কর্মকর্তা প্রকাশ্যে কোন ইজারা ব্যবস্থা না করিয়া সম্পূর্ন গোপনে আব্দুস ছালাম, পিতা- মৃত আরজ আলী, সাং- পুষ্পপাড়া, উপজেলা পাবনা এর নিকট সপ্তাহে মাত্র ২ লক্ষ টাকায় ইজারা প্রদান করেছে।

আরও উল্লেখ আছে তাহাতে সরকারের বিরাট অংকের রাজস্ব ক্ষতি হইতেছে এবং হইয়াছে। আবেদনকারীরা জানান স্থানীয় জনগণ অধিক আগ্রহে ছিলেন পুষ্পপাড়া হাট প্রকাশ্যে ইজারা হবে এবং সরকার রাজস্ব আয়ের জন্য বিগত বছরের মূল্যের চাইতে বর্তমান বৎসরের অধিক ইজারা হবে।

কিন্তু দেখা গেছে একটি সাদা কাগজে লেখা ” পুষ্পপাড়া হাটের খাস আদায় বাবদ অদ্য ১/৬/২০২১ তারিখে ২ লক্ষ টাকা বুঝিয়া পেলাম। সালাম ভাই এর নিকট হতে” এর পর ঐ সাদা কাগজের নিচে বিশেষ একটি সাক্ষর দেওয়া ও নিচে তারিখ লেখা। ভুক্তভূগিরা জানিয়েছে জনগণকে অন্ধকারাচ্ছান্নে রাখিয়া সম্পূর্ন গোপনে ইজারা দেওয়ায় এলাকার সাধারণ মানুষ একদিকে আশ্চর্য অন্যদিকে সরকার একটি বিরাট রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

অতএব পুষ্পপাড়া হাট ইজারা বাতিল করিয়া পুনরায় প্রকাশ্যে ইজারা দেওয়ার বন্দোবস্ত করার আবেদনে করেন। এ বিষয়ে আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খ ম আতিয়ার হোসেন ইউএনএস কে জানান বিগত দিনে দেখা গেছে প্রকাশ্যে ইজারা ব্যবস্থা হতো এখন দেখছি কখন কি ভাবে কে ইজারা পেলো তা আমি এবং ইউনিয়নবাসী জানেন না, তিনি সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে পূনরায় প্রকাশ্যে ইজারা দেওয়া দাবী জানান।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন