পাবনার চাটমোহরে পাট চাষ করে খুশি কৃষকরা

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি :পাবনার চাটমোহরের কৃষকেরা পাট কাটা, জাগ দেওয়া, আঁশ ছড়িয়ে পাট ধোয়া এবং শুকানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

উপজেলা সদরের উত্তরের তিনটি ইউনিয়ন বিলচলন, ছাইকোলা ও হান্ডিয়ালসহ হরিপুর ইউনিয়নের আংশিক এলাকার অপেক্ষাকৃত নিচু জমিগুলোতে বন্যার পানি চলে আসায়

এ এলাকার কৃষকেরা তোষা ও মেস্তা জাতের পাট কেটে ফেলছেন। বর্তমান সময়ে পাটের ভাল দাম থাকায় এ এলাকার পাট চাষীদের চোখে মুখে তাই এখন হাসির ঝিলিক। তবে পাটের দাম নিম্নগামী হওয়ায় তারা শঙ্কায়ও রয়েছেন।

পাট চাষে লোকসানের মুখে পরে কৃষক যখন পাট চাষ বিমুখ হচ্ছিলেন এমন সময় ক্রমাগত দুই বছর পাটের ভাল দাম পাওয়ায় এ এলাকার কৃষকেরা আবার পাট চাষে অগ্রহী হন।

সোনালী আঁশ খ্যাত পাট চাষ করে তারা এখন ভাল মুনাফা পাচ্ছেন। তাই পাট চাষের পরিধিও বাড়ছে।

পাশাপাশি পাট অধিদপ্তর চাটমোহরের পাট উৎপাদনকারী চাষীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ায়, সনাতন পদ্ধতিতে পাট চাষ বাদ দিয়ে আধুনিক ও উন্নত প্রযুক্তি নির্ভর পাট চাষ,

পাট বীজ উৎপাদন, সম্প্রসারণের লক্ষ্যে কর্মশালার আয়োজন করায় চাটমোহরের পাট চাষীরা এখন এর সুফল পাচ্ছেন।

চাটমোহর কৃষি অফিস সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে চাটমোহরের ১১ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌর এলাকায় ৮ হাজার ৭২০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ হয়েছে।

এর মধ্যে দেশী ১৩৫ হেক্টর, তোষা ৮ হাজার ৪৪৫ হেক্টর এবং মেস্তা ১৪০ হেক্টর। গত বছর চাটমোহরে ৮ হাজার ১০০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের পাট চাষ হয়েছিল।

গত বছরের চেয়ে এ বছর ৬শ ২০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ বেশি হয়েছে।

উপজেলার ছাইকোলা ইউনিয়নের বোয়াইলমারী গ্রামের পাট চাষী হান্নান সরকার জানান, এ বছর ৯ বিঘা জমিতে পাট চাষ করেছেন তিনি।

চাষ, বীজ, সার, দুই দফা আগাছা পরিষ্কার, কাটা, পঁচানো, আঁশ ছড়ানো সহ এক বিঘা জমিতে পাট চাষে প্রায় ১১ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।

আরও পরুনঃ পাবনার চাটমোহরে একটি রেস্টুরেন্ট-এ আগুন,বিশ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি!

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন