পাবনার চাটমোহরে ২ জন গৃহবধূর অপমৃত্যু; স্বামী জেলহাজতে

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধিঃ একইদিনে পাবনার চাটমোহরে ২ জন গৃহবধূসহ অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। উভয় ঘটনায় নিহত গৃহবধুর স্বামীকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের কাতুলী গ্রামের আনিসুর রহমানের স্ত্রী ২ সন্তানের জননী আল্পনা খাতুন (৩৪) এর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ১১ মার্চ পুলিশ গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে এবং নিহত গৃহবধূর স্বামীকে আটক করে।

পুলিশ ও এলাকাবাসীসুত্রে জানা যায়, বুধবার ১০ মার্চ দিবাগত রাত ১টার দিকে আল্পনার স্বামী অনিসুর রহমান ঘুম থেকে জেগে দেখেন তার স্ত্রী ঘরের ডাবের সাথে ঝুলছে। তার চিৎকারে বাড়ির লোকজন উঠে আসে। তারা দেখেন আল্পনা মারা গেছে। পরে তারা থানা পুলিশকে খবর দেয়।

এতে সন্দেহভাজন হিসেবে নিহত গৃহবধূর স্বামী আনিসুর রহমান (৩৯) কে আটক করেছে চাট্মোহর থানা পুলিশ।

নিহত গৃহবধূর স্বামী আনিসুর রহমান (৩৯) চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের কাতুলী গ্রামের মৃত আঃ রাজ্জাকের ছেলে।

আনিসুর রহমান দাবি করেছে, তার স্ত্রী গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ঐ সময় সে ঘুমিয়ে ছিল।

নিহত আল্পনার মা আছমা বেগম বলেন, তার মেয়েকে মারধর করে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। মাঝে মধ্যেই তার মেয়েকে নির্যাতন করা হতো বলে অভিযোগ করেন তিনি।

অপরাদিকে একই দিনে দুপুরে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে সাবিনা ইয়াসমিন টুলু (২৫) নামের অপর এক গৃহবধূ।

নিহত গৃহবধূ উপজেলার ফৈলজানা ইউনিয়নের কচুগাড়ি গ্রামের মজনুর রহমানের স্ত্রী।

জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে গৃহবধূ সবার অগোচরে নিজ শোবার ঘরের ডাবের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এব্যাপারে চাটমোহর থানার ওসি মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। সন্দেহজনকভাবে তার স্বামীকে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন