পাবনার দেবোত্তর হাটের জায়গা দখলের অভিযোগ

আটঘরিয়া(পাবনা) প্রতিনিধি: আটঘরিয়ায় এক শ্রেনীর অসাধু ব্যক্তিরা স্বার্থ হাসিলের জন্য দেবোত্তর হাটের জায়গা দখল নিয়ে দোকান ঘর নির্মাণ করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে সংকোচিত হচ্ছে দেবোত্তর হাটের জায়গা।

তবে বিষয়টি দেখার কেই নেই। ফলে ফুসে উঠেছেন বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। যে কোন মুহুতে বড় ধরনের সংর্ঘষের আশংকা করছেন তারা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জাহিদ, উজ্জল গং দেবোত্তর হাটের জায়গা জোরপূর্বক দখল নিয়ে টিন সেড দিয়ে একটি দোকান ঘর নির্মাণ করছেন।

ফলে হাটের জায়গা ক্রমেই সংকোচিত হচ্ছে। এছাড়া অনেকেই হাটের জায়গা দখল নিয়ে কাঁচাপাকা দোকান ঘর নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে মাসের পর মাস ফয়দা লুফে নিচ্ছে। আবার অনেকেই নিজে ব্যবসা করছেন।

বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে জেনেও না জানা ভান করছেন। ফলে সরকার প্রতিবছর এই হাট থেকে বিপুল পরিমান রাজস্ব হারাচ্ছেন। অনুসন্ধানে আরও জানা গেছে, কিছু নামধারী ব্যক্তি দেবোত্তর হাটের জায়গা লিজ নিয়ে গোপনে মাটিসহ দোকানঘর মোটা অংকের টাকার লোভে বিক্রি করে দিয়েছে।

ভূক্তভোগী আবুল হোসেন জুয়েল জানান, জাহিদ, উজ্জল গং আমার জায়গার সামনে হাটের জায়গা জোরপূর্বক মেয়রের সামনে দখল নিয়ে দোকানঘর করেছেন। এবিষয়ে মেয়র কোন পদক্ষেপ না নিয়ে তাদেরকে আরও সহযোগিতা করেছেন।

আমি বিষয়টি ইউএনও স্যারকে জানিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে আশ্বাস দেন। মেয়র শহিদুল ইসলাম রতন জানান, দোকানঘর করে ফেলেছে এখন আমি আর কি করব।

জুয়েল যেদিন বিল্ডিংয়ের কাজ ধরবে সেদিন সমস্ত দোকান ঘর ভেঙ্গে ফেলা হবে। এবং ভবিষ্যতে যখন হাটের জায়গা প্রসার করা হবে তখন উচ্ছেদ এর নোটিশ দিয়ে ভেঙ্গে ফেলা হবে।

আরও পড়ুনঃ পাবনার চাটমোহরে ২৪ ঘণ্টায় ১৬ জনের নমুনায় শনাক্ত ৬

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন