পাবনার ফরিদপুরে অভাবের তাড়নায় দম্পতির আত্মহত্যা

ফরিদপুর (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার ফরিদপুর উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা বিলচান্দক গ্রামে অভাবের তাড়নায় এক দম্পতি আত্মহত্যা করেছে।

প্রতিবেশি মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী ও ফরিদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ রানা জানান, খায়রুল মোল্লার ছেলে মানিক মোল্লা(২২) ঢাকায় গার্মেন্টেসে কাজ করা অবস্থায় প্রায় ১০ মাসে চাঁদপুরের আমিন হোসেনের মেয়ে গার্মেন্টস কর্মি লায়লা আক্তার (২০)কে বিয়ে করার পর গ্রামের বাড়ি এসে মানিক ভ্যান চালানো শুরু করে।

অভাবের কারণে গত ২/৩ দিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ চলছিল। রবিবার ১১ জুলাই মানিক মোল্লার পিতা ও মাতা দুপুর ১২টার দিকে সাংসারিক কাজে বাহিরে যান। বেলা আনুমানিক ১টার দিকে মানিকের মা আমেনা খাতুন বাড়ি এসে দেখে মানিকের ঘরের দরজা ভিতর থেকে আটকানো।

অনেক ডাকা-ডাকির পরে প্রতিবেশীরা এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে দেখে ঘরের মধ্যে মানিক ও তার স্ত্রীর দেহ ঝুলছে।

বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে, ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদ রানা নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ থানায় এনে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠিয়েছেন।

এ ব্যপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ পাবনার চাটমোহরের হান্ডিয়ালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন