পাবনার সাঁথিয়ায় জবর-দখল করে জমি থেকে মাটি কেটে পুকুর ভরাটের অভিযোগ

সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার সাঁথিয়ায় জবর-দখল করে ফসলি জমি থেকে মাটি কেটে পুকুর ভরাটের অভিযোগ। সাঁথিয়া থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে মাটি কাটা বন্ধ রয়েছে।

এলাকাবাসী ও অভিযোগসূত্রে জানাযায়, উপজেলার ধোপাদহ গ্রামের কোবাদ প্রামানিকের সাথে একই গ্রামের শাহজাহান আলীর জমি দখলকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিষয়ে এলাকায় কয়েক দফা দয়-দরবারও হয়েছে।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারী সকালে শাহজাহান কোবাদের ছেলে জাকিরগংদের ক্রয়কৃত ১৬ শতাংশ জমি যাহার মৌজা ধোপাদহ এস এ ৭২৯,আর এস ৩৯৩ খতিয়ানের এস এ ৩০২, আর এস ১৩২ দাগের ৫২শতাংশের কাত ১৬ শতাংশ জমি থেকে লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে মাটি কেটে পুকুর ভরাট করতে থাকে। জাকিরগংরা লাঠিয়াল বাহিণীর করাণে বাধা দিতে সাহস পায়নি। ঐদিনই জাকির বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে মাটি কাটা বন্ধ করে দেয়।

জাকির হোসেন জানান, শাহজাহান আমার ক্রয়কৃত জমি জবর-দখলের জন্য বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। এব্যাপারে পাবনা কোর্টে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ দায়ের করার পর থেকে তার আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।

এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তোজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষের আশংকা বিরাজমান। এব্যাপরে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আশিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, জমি থেকে মাটি কাটার ব্যাপারে মোখিক অভিযোগ পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মাটি কাটা বন্ধ করা হয়। উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে কাগজপত্র দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন