পাবনার সুজানগরে গৃহবধূ কে হত্যার অভিযোগ

সুজানগর(পাবনা)প্রতিনিধি: শিরিন আক্তার (৩০) নামের এক গৃহবধূ কে হত্যার অভিযোগে পাবনা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শিরিন আক্তার উপজেলার মানিক হাট ইউনিয়নের তৈলকুন্ডু গ্রামের মৃত সন্তেশ আলী খানের মেয়ে। গত মঙ্গলবার (২ আগষ্ট-২১) পাবনার সুজানগর উপজেলার হাট খালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত শিরিন আক্তারের২ ভাই কালু খান ও রিপন খান অভিযোগ করে বলেন, আমার বোনের বিয়ে হয় উপজেলার হাটখালী গ্রামের চাঁদ আলী কাজীর সাথে। দীর্ঘদিন ধরে তারা সংসার জীবন অতিবাহিত করে তাদের একটি পুত্র সন্তান হয়।  এরমধ্যে হঠাৎ করে চাঁদ আলী আরেক টা বিয়ে করে।

বিয়ে করার পর থেকে তাদের বোনের উপর শারীরিক ও নির্যাতন শুরু করে।গত মঙ্গলবার ২ আগষ্ট-২০২১ ইং তারিখে সকালে হঠাৎ করে এক মহিলা মোবাইল করে জানান, আপনার বোন খুবই অসুস্থ, ফোন পেয়ে দ্রুত বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তায় উঠতেই আবার মোবাইল করে জানান, আপনার বোন মারা গিয়েছে।

ঐ বাড়িতে গিয়ে দেখি চাঁদ আলী কাজী সহ কোন পুরুষ মানুষ নেই, শুধু কয়েক জন মহিলা মানুষ আছে। কয়েক জনের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, ভয়ে সবাই পালিয়েছে। চাঁদ আলী কাজী ও তার ছোট বৌ সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা মিলে আমার বোন কে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে।

তারা এই হত্যার জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে তাদের বোনের হত্যাকারীর সুষ্ঠু বিচারের দাবি করছেন।এ ব্যাপারে সুজানগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আব্দুল কুদ্দুস বলেন, লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ঘটনায় পাবনা কোর্টে চাঁদ আলী কাজী (৩৫),ছনিয়া খাতুন (২৮), বকুল কাজী(৩৮), মুকুল কাজী(৪১),আল আমিন কাজী(৩০) ও জামিরন খাতুন কে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ পাবনাতে প্রতিবন্ধী নারীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় আটক ১

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন