পাবনায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা : আসামীদের বাড়িতে আগুন

বার্তা সংস্থা পিপ (পাবনা) : পাবনায় সুমন প্রামনিক নামে এক যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ লোকজন আসামীদের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে ফায়ার বিগ্রেড এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে পাবনা শহরের দক্ষিন রামচন্দ্রপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম জুয়েল জানান, পাবনা সদর উপজেলার দোগাছি ইউনিয়নের দক্ষিন রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাকি প্রামানিকের ছেলে সুমন প্রামানিকের সঙ্গে প্রতিবেশী মৃত মানু মিস্ত্রির ছেলে মিঠুর সঙ্গে বিরোধ চলছিল।

কয়েকদিনে আগে তাদের মধ্যে মারামারি হয়। এ নিয়ে দু‘পক্ষের মধ্যে বেশ উত্তেজনা চলছিল। স্থানীয় কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, শনিবার দুুপুর ২টার দিকে মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন সুমন।

বাড়িতে প্রবেশের মুখে গলিতে মোটরসাইকেল রেখে যাওয়ার সময় সুমনের সাথে আবারও প্রথমে বাক বিতন্ডা হয় মিঠু, তার জমজ ভাই টিটু, মান্নান ও তাদের সহযোগিদের। এক পর্যায়ে তারা সুমনকে এলোপাথারী কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই সুমনের মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর নিহতের স্বজনরা হামলাকারী মিঠুর বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পাবনা দমকল বাহিনীর একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

জড়িতদের বিষয়ে তদন্ত ও আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। পূর্বের একটি মারামারির বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি।

আরও পড়ুনঃ পাবনায় কঠোর লকডাউন নিশ্চিতে সেনাবাহিনীর টহল জোরদার

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন