বাড়িতে থাকতে ইচ্ছে করছে না কবে যে স্কুল খুলবে -মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

পাবনা সংবাদদাতাঃ বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বকুল স্বাধীনতা চত্বরে অনুষ্ঠিত বইমেলাতে গতকাল অন্নদা গোবিন্দ পাবলিক লাইব্রেরী ও বইমেলা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে আলোচনা সভায় অংশ নেন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

সেখানে তারা বলেন, পাবনা জেলা স্কুলে ও সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে অনলাইনে ক্লাশ হচ্ছে না। তবে মাঝে মাঝে এসাইমেন্ট জমা নেওয়া হচ্ছে। ইন্টারনেটের মাধ্যমে ক্লাশ করছে অনেক শিক্ষার্থী। বাড়িতে আর থাকতে ইচ্ছে করছে না কবে যে স্কুল খুলবে। জীবন ধীরে ধীরে একঘেয়েমি হয়ে উঠছে।

স্কুল কবে খুলবে সে আশায় সময় গুনছে শিক্ষার্থীবৃন্দ।

আলোচনায় অংশ নেয় রিয়া পাল, সুমাইয়া সায়মা, মৌমিতা মুমু, তাওসিফ আহমেদ, জামিউল হাসান সোহান, এস এম অর্নব, সায়মা আক্তার, রামিমা তাবাসসুম, মো. সিবগাতুল্লাহ, তনুশ্রী ঘোষ অমৃতা, আয়ুস্কর ঘোষ ও সামিহা সুলতানা।

আলোচনা সভা পরিচালনা করেন এাডভোকেট মোশফেকা জাহান কনিকা ও ড. মুহাম্মদ হাবিবুল্লাহ।

আলোচনা সভার শুরুতে বিকালে ব্যাক ব্যান্ড ও ঘাস ফড়িং এর ব্যান্ড শিল্পীরা পরিবেশন করে ব্যান্ড সঙ্গীত। নৃত্য পরিবেশন করে নৃত্য রং এর নৃত্য শিল্পীরা। নৃত্য পরিচালনা করেন হারুনুর রশিদ লিটন।

আলোচনা শেষে তিন পাগল সাংস্কৃতিক দলের শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় সঙ্গীতানুষ্ঠান।

এছাড়াও নাটক পরিবেশন করেন চাটমোহরের মুলগ্রামের চিকনাই থিয়েটার নাট্য দল।

সাংস্কৃতিক পর্বের সামগ্রীক তত্বাবধায়নে ছিলেন প্রলয় চাকি। অসংখ্য দর্শক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

উল্লেখ্য, অন্নদা গোবিন্দ পাবলিক লাইব্রেরীতে চলমান দুর্লভ ছবি ও বই এর প্রদর্শনীতেও দেখা মিলেছে অনেক পাঠক ও দর্শনার্থীর। ঘুরে ঘুরে দেখছেন তারা ঐতিহ্যের স্মারক দুর্লভ বইয়ের সমাহার। আয়োজকরা জানান, আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত চলবে এই পুস্তক প্রদর্শনী।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন