যশোরের শার্শায় অগ্নিকান্ডে ১শত ১৭টি গৃহপালিত প্রাণীর মৃত্যু

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শায় ০২টি গোয়াল ঘরে আগুন লেগে কৃষক মকবুলের ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে।

এসময় গরু ও ছাগল বাঁচাতে গিয়ে তিনি মারাত্নকভাবে আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২ এপ্রিল) গভীর রাতে শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া ইউনিয়নের বসতপুর কলোনি গ্রামে কৃষক মকবুলে বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মকবুল ঐ গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, রাতে কৃষক মকবুল প্রতিদিনের মতো গোয়াল ঘরে মশা মারার কয়েল জ্বালিয়ে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন।

পরে রাত গভীর হলে মশার কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে গোয়ালে পড়ে থাকা খড়ে ছড়িয়ে পড়ে।

মুহুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা গোয়াল ঘরটি জ্বালিয়ে বসত বাড়ির ঘর জ্বালাতে শুরু করলে লোকজন টের পায়।

ঐ সময় তাদের চিৎকারে গ্রামবাসী ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে।

পরে সংবাদ পেয়ে বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ততক্ষণে গোয়াল ঘরে থাকা কৃষক মকবুলের ৯ টি ছাগল ও হাঁস মুরগী অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যায়। এতে ওই কৃষকের প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এ সময় গরু ছাগল বাঁচাতে গিয়ে আহত কৃষক মকবুল শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মকবুলের শরীরের ২০ শতাংশ পুড়ে গেছে। এজন্য সেখানকার কর্মরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর সদর হাসপাতালে প্রেরন করেছে।

বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা বলেন, আগুন লাগার সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানো হয়েছে।

তবে গোয়াল ঘরে মশার কয়েল থেকে এ আগুন লাগতে পারে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন