রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ইউনিট-১ এর বিম স্থাপন সম্পন্ন

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ ট্রাস্ট রোজেম, রোইন ওয়ার্ল্ড এলএলসি এবং এনার্গোস্পেকমোন্তাঝ জেএসসি এর সাবকন্ট্রাক্টর বিশেষজ্ঞরা পাবনা রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ইউনিট -১ এর রেইল ট্র্যাকে দুইটি জটিল পোলার ক্রেন বিম স্থাপন শেষ করেছে- রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মানের জেনারেল কন্ট্রাক্টর –এটমস্ত্রয় এক্সপোর্ট।

বৃহস্পতিবার (৪ই মার্চ) রোসাটমের গণমাধ্যম প্রেরীত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এগুলো ক্রেনের মুল ধাতব কাঠামো এবং এর সাহায্যে পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মুল প্রযুক্তিগত যন্ত্রপাতি (রিয়াক্টর ভেসেল, স্টিম জেনারেটর, প্রেসার কম্প্রেসার) পরিবহনের ও পরবর্তীতে এগুলোকে কন্টেইনমেন্ট এরিয়াতে স্থাপন করা হয়।

পোলার ক্রেনের এই বিমগুলোকে একটি শক্তিশালী ক্রলার ক্রেন লিভারের সাহায্যে ৩৮,৫০০ মিটার উচুতে নিয়ে রিয়াক্টর বিল্ডিং এ স্থাপন করা হয়।

এএসই জেএসসি এর প্রকল্প ব্যাবস্থাপনা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের শাখার সহকারী পরিচালক ইয়ুরী কশেলেভ বলেন, এই ধরনের ভারী কাঠামোকে স্থাপন করা অত্যন্ত জটিল এবং এর জন্য সাব-কন্ট্রাক্টদের সাথে সু-সম্বনয় করে কাজ করতে হয়।

রোইন ওয়ার্ল্ড এলএলসি বিশেষজ্ঞগন ক্রেনের সাহায্য বিম গুলোকে তোলার কাজ করেন, ট্রাস্ট রোজেমের বিশেষজ্ঞগন সংক্ষিপ্ততম সময়ের মধ্যে ৩৮,০০০ মিটার রেল ট্যাকের কন্টেইন্মেন্ট লোব স্থাপন করেন এবং নার্গোস্পেকমোন্তাঝ জেএসসি এর বিশেষজ্ঞগন রেল লাইনে বিম স্থাপনের কাজ করেন।

রোসাটম আরো জানায়, বর্তমানে ক্রেন রানওয়েতে অবকাঠামো নির্মান এবং ক্রেন মেকানিজমের কাজ চলছে।

ক্রেনের বৃত্তাকার ব্যাবহারের জন্য সব লোডিং ও আনলোডিং এর কাজ রিয়াক্টর কম্পার্টমেন্টের যে কোন পয়েন্টে করা সম্ভব হবে।

পরিকল্পনা অনুযায়ী পোলার ক্রেন (বৃত্তাকার ক্রেন) সংস্থাপনের কাজ এ বছরের জুন মাসের মধ্যে শেষ হবে, এর পরে এই পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের রিয়াক্টর প্লান্টের বৃহৎ যন্ত্রাংশ সমূহের সংস্থাপনের কাজ শুরু হবে।

পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মান ও বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হলে এই ক্রেনটি পরবর্তীতে মেরামত ও জ্বালানী সরবরাহের কাজে ব্যাবহার করা হবে।

২০১৫ সালের ২৫ ডিসেম্বরের চুক্তি অনুযায়ী রাজধানী ঢাকা থেকে ১৬০ কিলোমিটার দূরে রাশিয়ান প্রকল্প অনুযায়ী রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে। এটি ভিভিইআর-১২০০ রিয়াক্টর সমৃদ্ধ এবং এর উৎপাদন ক্ষমতা ২৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ।

রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মানের জেনারেল কন্ট্রাক্টর এটমস্ত্রয় এক্সপোর্ট (রোসাটমের প্রকৌশল শাখা)।

বাংলাদেশ প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্যে রাশিয়ান ভিভিইআর-১২০০ রিয়াক্টরকে বেছে নিয়েছে।

এই রিয়াক্টর নভোভোরোনেঝ পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২টি ইউনিটে সফল ভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

এটি একটি সম্পূর্ন আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন জেনারেশন থ্রি প্লাস প্রজেক্ট।

আরও পড়ুনঃ পাবনা রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২য় ইউনিটের সেমি-ভেসেলের সংযোজন

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন