সিরাজগঞ্জের তাড়াশে কমিউনিটি ক্লিনিকে সন্ত্রাসী হামলা

তাড়াশ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে কমিউনিটি ক্লিনিকে সন্ত্রাসী হামলায় সরকারী সম্পদবিনষ্টসহ সিএইচসিপিকে মেরে আহত করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সগুনা ইউনিয়নের সবুজ পাড়া নামক কমিউনিটি ক্লিনিকে। ১৩ জুলাই মঙ্গলবার সকালে কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি এনামুল হককে মেরে আহত করায় ১) আব্দুর রউফের ছেলে রুবেল হোসেন,

২)সামাউনের ছেলে মিলন ৩) আতার আলীর ছেলে রাসেল ৪) আব্দুল বারিকের ছেলে হাসিনুরসহ অজ্ঞাত নামে তাড়াশ থানায় সন্ধ্যার পর অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে, কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি এনামুল হক যথা নিয়মে ক্লিনিকে গিয়ে অফিস খুলতেই এই সন্ত্রাসী দল তাকে ঔষধ দেওয়ার জন্য বলে।

তিনি তাদের কে বলেন অফিসের কাগজ পত্র গুলি ঠিক করে ঔষধ দিচ্ছি। তখনই সন্ত্রাসী দল তাকে গালি গালাজ করতে থাকে। অবস্থা খারাপ দেখে সে তাড়াতাড়ী করে ঔষধ দিয়ে বিদায় করেন।

পরে তিনি অফিসের কাজ সেরে রোগীদের ঔষধ দিতে থাকেন। প্রায় ৩০মিনিট পর ওই সন্ত্রাসী দল আবারোও ক্লিনিকে প্রবেশ করে
আমাকে ঘিরে ফেলে।

তার পর গালি গালাজ করতে থাকে ও আমাকে হুমকি দামকি দিতে থাকে। আমি তাদের বলি সরকারী অফিসের মধ্যে আপনাদের এটা করা ঠিক হচ্ছে না।

এ কথা বলতেই তারা আামকে এলোপাথারী ভাবে মারতে থাকে। রোগীরা আমাকে রক্ষা করে। পরে দেখী অফিসের মধ্যে সরকারী সম্পদ অনেক কিছুই পাওয়া যাচ্ছেনা।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জামাল মিয়া শোভন জানান, তাড়াশে স্বাস্থ্য সেবায় জড়িতদের উপর কেন বার বার সন্ত্রাসী হামলা করছে তা ভেবে দেখা দরকার।

সরকারী দফতরে ঢুকে সন্ত্রাসী হামলা করায় আমরা এর শাস্তি দাবি করছি। এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ ফজলে আশিক বলেন,অভিযোগটি পেয়েছি।তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও  পরুনঃ, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে প্রতিদিন অর্ধশত বাড়িতে খাবার দিচ্ছেন ইউএনও শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন