সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে প্রতিবেশীর কবর খুঁড়তে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় যুবক নিহত

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে প্রতিবেশীর কবর খুঁড়তে গিয়ে কাভার্ড ভ্যান চাপায় যুবক নিহত হয়েছে। মাত্র একদিনের ব্যবধানে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আক্তার মোল্লা (৪৫) নামের আরো একজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, গত শুক্রবার রাতে উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের ফরিদ পাঙ্গাসী গ্রামে। নিহত আক্তার মোল্লা ওই গ্রামের আলমাছ আলী মোল্লার ছেলে। সে তিন সন্তানের জনক।

এলাকাবাসী জানায়, আক্তার মোল্লা শাহজাদপুর পৌর শহরে অবস্থানকালীন জানতে পারে গ্রামের প্রতিবেশী এক বৃদ্ধা মারা গেছে। বৃদ্ধার কবর খুঁড়তে আক্তার মোল্লা তৎক্ষণাৎ ভ্যান যোগে গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। রাত সাড়ে ৭টায় শাহজাদপুর-এনায়েতপুর আঞ্চলিক সড়কের ফরিদ পাঙ্গাসী গ্রামে বাড়ির সন্নিকটে পৌঁছায়। তখন তাকে বহনকারী ভ্যানটির বিপরীত দিক থেকে আসা (ঢাকা মেট্রো-ট ১৩-৬৩৩১) একটি কাভার্ড ভ্যান চাপা দেয় এবং কাভার্ড ভ্যানের চাকার নীচে পড়ে সে পিষ্ট হয়। পার্শ্ববর্তী লোকজন ছুঁটে এসে মুমুর্ষ অবস্থায় আক্তার মোল্লাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

এলাকাবাসী ঘাতক কাভার্ড ভ্যানটিকে আটক করে, তবে চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। এই বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি (তদন্ত) কমল কুমার দেবনাথ জানান, এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। কাভার্ড ভ্যানটি থানায় জব্দ করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় বগুড়া-নগরবাড়ি মহাসড়কের শাহজাদপুরের হালিয়াঘাটি নামক স্থানে ট্যাংকলরি ও সিএনজির মুখোমুখী সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয় এবং গত ১৯ মার্চ একই স্থানে সিএনজি ও ট্রাকের সংঘর্ষে সিএনজির চালকসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন